Header Ads

বাংলা ভাষার আন্তর্জাতিক প্রসার




আজকাল বাংলার বাইরে যে সমস্ত বাঙালিরা বসবাস করেন। একটু চোখ মেললে দেখা যায় সেখানে কিছু বাঙালিরা বাঙালিদের সাথে হিন্দিতে কথা বলছে। যা দেখে মনে মনে রাগ জন্মায়। তাদের বাঙালি বলতে ঘৃণা হয়। 

বাংলা ভাষাকে হয়তো বাঙালিরা এখনও পুরোপুরি চেনেন না। আসুন আপনাদের একটা সুখবর দিতে চলেছি। অনেকে হয়তো শুনেছেন। যারা শোনেননি এখনও তাদের বলবো জেনে রাখুন। বাঙালি হিসেবে নিজেকে নিয়ে গর্ব হওয়া উচিৎ, বিশেষ করে বাংলাভাষা নিয়ে। অস্ট্রেলিয়া সংসদে স্বীকৃতি পেল বাংলা ভাষা। 

শুধু তাই নয়, এছাড়াও ৩০ টি দেশে ১০০ বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা বিভাগ, ৬ টি রাষ্ট্রের রাষ্ট্রীয় বেতারে বাংলা ভাষার চ্যানেল, ১০ টি দেশের রেডিওতে বাংলা অনুষ্ঠান, ব্রিটেন ৬ টি ও আমেরিকাতে ১০ টি টিভি চ্যানেল, আমেরিকা-কানাডা-ইউরোপ সহ ৮ টি দেশে বাংলা সংবাদপত্র, আরবে ৬ টি দেশে বাংলা সংবাদপত্র নির্মিত হয়েছে। এটা বাংলা ভাষার সবচেয়ে বড়ো প্রাপ্তি ভারত ও বাংলাদেশ ব্যতীত। 

বর্তমানে হাজার হাজার অবাঙালি মানুষেরা বিভিন্ন দেশে বাংলা ভাষা নিয়ে গবেষণা করছেন। এমনকি হাবার্ড, কেমব্রিজের মতো নামীদামী বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা সাহিত্য পড়ানো হয়। ২০১৬ সালের ২১ শে ফেব্রুয়ারী অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরা স্টেট সংসদে আন্তর্জাতিক ভাষা দিবস পালনের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় আর তারই পরিপ্রেক্ষিতে চলতি বছরের ১২ ই ফেব্রুয়ারী অস্ট্রেলিয়াতে বাংলা ভাষা পেল সংসদীয় স্বীকৃত। যা বাংলাভাষার মর্যাদাকে দ্বিগুণ বৃদ্ধি করল। ভারত, বাংলাদেশ, সিয়েরা লিওনের পর এবার অস্ট্রেলিয়াতে সরকারী ভাষার সম্মান পেল বাংলাভাষা। 

বাংলাভাষা, সাহিত্য, ইতিহাস, সংস্কৃতি নিয়ে বর্হিবিশ্বে ভারত ও বাংলাদেশের পর ব্রিটেন ও আমেরিকাতে সর্ববহুল চর্চিত হয়। আর বর্তমান সূদুর ব্রিটেন, আমেরিকা ছাড়িয়ে চিন, জাপান, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, জার্মানি, ফ্রান্স, সুইডেন, ডেনমার্ক, কানাডা, রাশিয়া, চেক রিপাবলিক, পোল্যান্ড এবং আরো অনেক দেশে সর্বাধিক দেশে বাংলা ভাষা চর্চিত হচ্ছে। অতএব বাংলা ভাষার ভবিষ্যত উজ্জ্বল।
                                                                                            ----সুমিত দে

No comments